DJ Party Dhaka Radisson Hotel, ঢাকার পাঁচ তারকা হোটেলে থার্টিফার্স্ট নাইট

  • Uploaded 5 months ago in the category Scandal & Gossip

    রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে থার্টিফার্স্ট নাইট উদযাপন বিটের তালে কেঁপে উঠছে ফ্লোর, চার দেয়াল। মঞ্চ থেকে আঙুলের জাদু দেখাচ্ছেন ডিজেরা। একের পর এক বাজছে হিন্দ

    ...

    রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে থার্টিফার্স্ট নাইট উদযাপন বিটের তালে কেঁপে উঠছে ফ্লোর, চার দেয়াল। মঞ্চ থেকে আঙুলের জাদু দেখাচ্ছেন ডিজেরা। একের পর এক বাজছে হিন্দি, ইংরেজি গান। বিশাল বলরুমজুড়ে বর্ণিল আলো। লাল, নীল আলো-আবছা আঁধারে ওয়েস্টার্র্ন ড্যান্সে মেতে উঠেছেন তরুণ-তরুণীরা। অনেকের হাতে বিয়ারের ক্যান।

    হুইস্কির গ্লাস। ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ বলে চিয়ারস করছিল তারা। নাচ করতে করতে বেসামাল হয়েছেন অনেকে। মিউজিকের তালে তালে অন্তরঙ্গভাবে মিশে যাচ্ছিলেন সমবেত নারী-পুরুষ। তরুণীদের লিপস্টিকের দাগ লেগেছিল অনেক তরুণের গালে, শার্টে, ব্লেজারে। ক্লান্ত হয়ে কেউ কেউ ফ্লোরের চার পাশের সোফায় বসেছিলেন সঙ্গীর কোলে-পাশে। রাতভর ছিলো আনন্দ-উন্মাদনা। এভাবেই চার দেয়ালের ভেতরে পালিত হয়েছে থার্টি ফার্স্ট নাইট। রাজধানীর তারকা হোটেলগুলো ঘুরে দেখা গেছে এসব দৃশ্য।

    ফ্যাশন শো, লাতিন ড্যান্স চলছিলো সন্ধ্যা থেকেই। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বদলে যেতে থাকে রেডিসনের বলরুমের দৃশ্যপট। বিটের তালে চলছিলো ব্যালে ড্যান্স। স্বল্পবসনা তরুণীরা ঠাঁই নিয়েছেন নির্ধারিত পুরুষদের বুকে। নাচ করতে করতেই পান করছেন তারা। মদে-নাচে মাতাল হয়েছিলেন কেউ কেউ। মাথায় পানি ঢালতে হয়েছে বেশ কয়েকজনকে। রাত ১টার পরে বাজাচ্ছিলেন ডিজে পরী।

    ড্যান্স ফ্লোরে কয়েক শ’ তরুণী। তিন-চার জনকে দেখা গেছে শাড়ি পরে এতে অংশ নিতে। শাড়িতেও ছিল চমক। হাত-পিঠকাটা ব্লাউজের সঙ্গে পাতলা শাড়ি পরেই সমান তালে নাচ করছিলেন সঙ্গীর সঙ্গে। তবে নাচতে নাচতে শাড়ি পরা তরুণীদের দুই-একজন অর্ধবসন হারা হয়েছেন। বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া তরুণী এই পার্টিতে ড্যান্স করছিলেন।

    তবে প্রফেশনাল তরুণীদের সংখ্যা ছিলো বেশি। মতিঝিল থেকে পার্টিতে অংশ নিয়েছিলেন রূপা নামের সাতাশ বছর বয়সী এক নারী। তিনি জানান, তারকা হোটেলে ডাক পড়লেই ছুটে যান তিনি। পার্টিতে নাচ করেই সংসার চালান এক সন্তানের এই জননী।

    মতিঝিল থেকে রাত ৯টার দিকে পার্টিতে অংশ নেন তিনি। এক বন্ধুর দেয়া টিকিটে প্রবেশ করেন সেখানে। নেচে নেচে সারারাতে উপহার পেয়েছেন প্রায় আট হাজার টাকা। তবে, সুমি, লোনাসহ অনেক তরুণী জানান, পুরুষ সঙ্গীকে আনন্দ দিয়েও নগদ টাকা উপহার নেন তারা। কেউ কেউ নাচার পর কোনো উপহার না দিয়েই চলে যান। এমন ঘটনার শিকার হয়েছেন ড্যান্স ফ্লোরের অনেক তরুণী। ‘বি’ গ্রেডের কয়েক মডেলকে দেখা গেছে সেখানে নাচ করে উপহার গ্রহণ করতে।

    সুন্দরী তরুণীদের নিয়ে অনভিপ্রেত ঘটনাও ঘটেছে। মঞ্চে তখন হাতের যাদু দেখাচ্ছিলেন ডিজে মারিয়া। ফ্লোরে মাতাল নৃত্য। বলরুমের দরজার আশপাশে বিয়ারের ক্যান হাতে সমবেতরা। নাচ করতে করতে ক্লান্ত হয়ে সোফাতে বসে সঙ্গীকে জড়িয়ে বিটের তালে শরীর দুলানোর চেষ্টা করছেন কেউ কেউ।

    ওই সময়ে অন্য যুবকের হাত থেকে এক সন্দরী তরুণীকে টেনে নিয়ে যাচ্ছিলেন মাতাল যুবক। এ নিয়ে বাকবিতণ্ডা বেশিদূর যাওয়ার আগেই মাতাল যুবককে অন্যরা টেনে নিয়ে যান। কিছুক্ষণ পরেই ওই যুবকের মাথায় পানি ঢেলে শান্ত করার চেষ্টা করছিলেন অন্যরা।

  • # dj# party# dhaka# radisson# hotel# ঢাকার# পাঁচ# তারকা# হোটেলে# থার্টিফার্স্ট# নাইট
show more show less
Close